যোজ্যতা ইলেকট্রন কাকে বলে? বের করার নিয়ম ও উদাহারণ।

যোজ্যতা ইলেকট্রন কাকে বলে?

একটি মৌলের সর্বশেষ প্রধান শক্তি স্তরের মোট ইলেকট্রন সংখ্যা ঐ মৌলের যোজন ইলেকট্রন বা যোজ্যতা ইলেকট্রন।

যেমন,

শক্তিস্তর
শক্তিস্তর

সাধারণত একটি মৌলের ইলেকট্রন সমূহ K, L, M, N প্রধান শক্তিস্তরে অবস্থান করে।

যোজ্যতা স্তর কাকে বলে?

যোজ্যতা গঠনের সময় সর্ব-বহিঃস্থস্তরে ইলেক্ট্রণ অংশগ্রহণ করে, এজন্য এ পরমাণু স্তরকে যোজ্যতা স্তর বলা হয়।

যোজ্যতা ইলেকট্রনের উদাহারণ:

ফ্লোরিন ও আর্গন
ফ্লোরিন ও আর্গন

ফ্লোরিন আর আর্গনের যোজ্যতা ইলেকট্রন কত সেটি আমরা এখন বের করবো।

১. ফ্লোরিনের সর্বশেষ প্রধান শক্তিস্তর হল L আর L শক্তিস্তরে ইলেকট্রন আছে ৭টি । এজন্য ফ্লোরিনের যোজ্যতা ইলেকট্রন ৭।
২. অপরদিকে, আর্গনের সর্বশেষ প্রধান শক্তিস্তর M আর M শক্তি স্তরে ইলেকট্রন আছে ৮টি। এজন্য আর্গনের যোজ্যতা ইলেকট্রন ৮।

আশা করি আমরা এখন বুঝতে পেরেছি, যে কিভাবে একটি মৌলের যোজন ইলেকট্রন বা যোজ্যতা ইলেকট্রন নির্ণয় করা যায় এই উদাহরণের মাধ্যমে।

ইলেক্ট্রন সম্পর্কে আরো জানতে, পড়ুন ইলেক্ট্রন কাকে বলে? পোস্টটি।

আর্গন এর যোজ্যতা কত?

আর্গনের যোজ্যতা ইলেকট্রন ৮।

Spread the love

Leave a Comment